Frequently Asked Questions (FAQ)

প্রশ্ন নং-১: আমার উপর অত্যধিক/বেশী কর আরোপ করা হয়েছে। এখন আমি কি করব ?

উত্তর: আপনি আপীল দায়ের করতে পারেন।

প্রশ্ন নং-২: আপীল কি ?
উত্তর: আপীল হলো তৃতীয় পক্ষের অর্থাৎ আপীলাত কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে ন্যায় বিচার প্রাপ্তির একটি প্রক্রিয়া।

প্রশ্ন নং-৩: আমি আপীল কোথায় করব ?

উত্তর: আপনি দাবীনামা পেয়ে থাকলে উহাতে বর্ণিত আপীল অফিসে আপীল করতে পারেন। দাবীনামা না পেলে সংশ্লিষ্ট কর সার্কেল হতে নির্দিষ্ট ‘কপিং ফি’ জমা দিয়ে দাবীনামা নোটিশ অথবা কর নির্ধারণী আদেশ অথবা উভয় সংগ্রহপূর্বক উক্ত দাবীনামা নোটিশে বর্ণিত আপীল অফিসে আপীল করতে পারেন।

প্রশ্ন নং-৪: আমি কিভাবে আপীল দায়ের করতে পারব ?
উত্তর: প্রতিটি করবর্ষের প্রতিটি আদেশের বিপরীতে ২০০/- টাকা ‘আপীল ফি’ নির্দিষ্ট কোড এ জমা দিয়ে আপীলের কারণসমূহ উল্লেখপূর্বক নির্দিষ্ট ফরম (আইটি-২৭) যথাযথভাবে পূরণপূর্বক দাবীনামা নোটিশ অথবা কর নির্ধারণী আদেশের কপি অথবা উভয়ের কপিসহ আপীল করতে হবে।

প্রশ্ন নং-৫: আপীল দায়ের করার জন্য আরো কোন শর্ত প্রতিপালন করতে হবে কি না?
উত্তর: আপীল দায়েরের পূর্বে আপনার কর্তৃক আয়কর রিটার্নে প্রদর্শিত আয়ের উপর প্রযোজ্য সমুদয় প্রদেয় আয়কর পরিশোধ করতে হবে। আয়কর রিটার্নে ক্ষতি প্রদর্শিত হলে ব্যক্তি করদাতার ক্ষেত্রে আপীল দায়েরের জন্য আয়কর পরিশোধ করতে হবে না।

তবে কোম্পানী করদাতা হলে এবং কোম্পানীর ব্যবসায় আয় থাকলে সেক্ষেত্রে ব্যবসায় ক্ষতি হলেও ধারা-১৬সিসিসি এর বিধান মোতাবেক আপীল দায়েরের পূর্বে ‘টার্ন ওভার’ ট্যাক্স হিসাবে বিক্রয়ের উপর নির্দিষ্ট হারে কর পরিশোধ করতে হবে।
তাছাড়া আয়কর রিটার্ন দাখিল করা না থাকলে উপকর কমিশনার কর্তৃক দাবীকৃত করের ১০% আপীল দায়েরের পূর্বে পরিশোধ করতে হবে।

প্রশ্ন নং-৬: কত দিনের মধ্যে আপীল করতে হবে ?
উত্তর: দাবীনামা নোটিশ অথবা করাদেশ অথবা উভয় প্রাপ্তি ৪৫ দিনের মধ্যে আপীল করতে হবে।

প্রশ্ন নং-৭: কি কি কারণে আপীল প্রত্যাখ্যাত (জবলবপঃবফ) হতে পারে?
উত্তর: আপীলের কারণ উল্লেখসহ আপীল ফরম (আইটি-২৭) যথাযথভাবে পূরণ না করলে, আপীল ফি নির্দিষ্ট কোডে ও পরিমাণে পরিশোধ না করলে, নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে আপীল দায়ের না করলে এবং আপীল দায়েরের পূর্বে প্রযোজ্যতা মোতাবেক আয়কর পরিশোধ না করলে।

প্রশ্ন নং-৮: আপীল দায়েরের জন্য আপীল ফরম (আইটি-২৭) কোথায় পাওয়া যাবে ?
উত্তর: যে কোন আপীল অফিসে পাওয়া যাবে। তাছাড়া www.incometaxappeal.gov.bd, ওয়েবসাইট হতেও download করে ব্যবহার করা যাবে।

প্রশ্ন নং-৯: আপীল দায়ের করার পর আমার করণিয় কি ?
উত্তর: আপীল দায়েরের পরে আপীল কর্তৃপক্ষ সুনির্দিষ্ট তারিখ ও সময় উল্লেখপূর্বক আপনার উপর শুনানী নোটিশ জারী করবেন এবং উক্ত নোটিশের প্রেক্ষিতে তার নিকট শুনানী প্রদান করবেন।

প্রশ্ন নং-১০: আপীল শুনানীতে আমি উপস্থিত হতে পারবো কি না অথবা কে উপস্থিত হতে পারবেন ?
উত্তর: আপীল শুনানীতে আপনি নিজে অথবা আপনার মনোনীত ক্ষমতাপ্রাপ্ত প্রতিনিধি শুনানী প্রদান করতে পারবেন। আপনি লিখিত বক্তব্য ও প্রয়োজনে বক্তব্যের সমর্থনে সংশ্লিষ্ট তথ্য-উপাত্ত ও প্রমাণক দাখিল করতে পারবেন।

প্রশ্ন নং-১১: আপীলে আমি কি কি সুবিধা পেতে পারি ?
উত্তর: আপীল কর্তৃপক্ষ উপ কর কমিশনার কর্তৃক নিরূপিত আয় বহাল, হ্রাস, সেট-এসাইড (ংবঃ-ধংরফব), বাতিল অথবা তিনি যা উপযুক্ত মনে করবেন তা করতে পারবেন। আপীল কর্তৃপক্ষ উপ কর কমিশনার কর্তৃক নিরূপিত আয় বৃদ্ধিও করতে পারবেন। তবে এ ক্ষেত্রে বৃদ্ধিকরণের পূর্বে বাধ্যতামূলকভাবে আপনাকে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ প্রদান করতে হবে।

প্রশ্ন নং-১২: শুনানী প্রদানের পর কত দিনের মধ্যে আমি আপীল আদেশ পাব ?
উত্তর: শুনানী গ্রহণের পর অথবা আপনার উপর নোটিশ জারী করা সত্ত্বেও আপনি শুনানী প্রদান না করলে আপনি যে মাসে আপীল দায়ের করেছেন সে মাস বাদ দিয়ে পরবর্তী ১৫০ দিনের মধ্যে আপীল কর্তৃপক্ষ আপীল মামলা নিষ্পত্তি করবেন। তবে আপীল কর্তৃপক্ষ আপীল মামলা নিষ্পত্তি করার তারিখ হতে ৩০ দিনের মধ্যে তা আপনার নিকট প্রেরণ করার সুযোগ পাবেন।

প্রশ্ন নং-১৩: আপীল আদেশ প্রাপ্তির পর আমার আর কি করণিয় আছে ঃ
উত্তর: আপীল আদেশের নির্দেশনার ভিত্তিতে উপ কর কমিশনার আপনার নিকট সংশোধিত করাদেশ (আইটি-৮৮), সংশোধিত দাবীনামা (আইটি-১৫) এবং সংশোধিত কর পরিগণনা ফরম (আইটি-৩০) প্রেরণ করবেন।

তবে আপীল কর্তৃপক্ষ আপনার মামলাটি সেট-এসাইড (set-aside) করলে সংশ্লিষ্ট উপ কর কমিশনার আপনার উপর নোটিশ জারীপূর্বক আপনার বক্তব্য গ্রহণপূর্বক অথবা আপনি উপ কর কমিশনার কর্তৃক জারীকৃত নোটিশের প্রেক্ষিতে শুনানী প্রদান না করলে আপীল আদেশ প্রাপ্তির ৪৫ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তি করবেন এবং উক্ত নিষ্পত্তিকৃত মামলার করাদেশ (আইটি-৮৮), দাবীনামা (আইটি-১৫) এবং কর পরিগণনা ফরম (আইটি-৩০) নিষ্পত্তির ৩০ দিনের মধ্যে আপনার নিকট প্রেরণ করবেন।

প্রশ্ন নং-১৪: সেট-এসাইড (ংবঃ-ধংরফব) কি?
উত্তর: সেট-এ-সাইড বলতে উপ কর কমিশনার কর্তৃক ইতোপূর্বের প্রণীত কর নির্ধারণী আদেশের পরিবর্তে পুনরায় নতুনভাবে কর নির্ধারণী আদেশ প্রণয়ন করার আদেশ।

প্রশ্ন নং-১৫: আপীল মামলা প্রত্যাখ্যাত (Rejected) হলে অথবা সুবিচার না পেলে আমার পরবর্তী করণিয় কি ?
উত্তর: এ ক্ষেত্রে আপীল আদেশ প্রাপ্তির পর ৬০ দিনের মধ্যে উপযুক্ত (Respective) কর আপীলাত ট্রাইবুনালের নিকট নির্দিষ্ট শর্তসমূহ প্রতিপালনপূর্বক আপীল দায়ের করতে পারবেন।

Income Tax (Appeal)

Income Tax (Appeal)

Income Tax (Appeal)